বন্যার্তদের পাশে শেখ হাসিনা সরকার আছে থাকবে: উপমন্ত্রী শামীম

নিজস্ব প্রতিবেদক: নড়িয়ার প্রায় সব ইউনিয়ন বন্যা কবলিত। এই বন্যা-করোনা সঙ্কটের মাঝেই আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা এবং প্রশাসনের কর্মকর্তারা গত মার্চ মাস থেকেই মানুষের পাশে ছিলো এবং আছে। সরকারের পাশাপাশি আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে ছাত্রলীগের ছেলেরা হাটু পানিতে নেমে বাড়ি বাড়ি গিয়ে শুকনো খাবার পৌঁছে দিচ্ছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ এমনকি মহিলা আওয়ামীলীগ বন্যার্তদের পাশে কাজ করছে।

সোমবার (২৭ জুলাই) দুপুরে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ঘড়িষার ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ ও তাঁর নিজের মায়ের নামে গড়া “বেগম আশ্রাফুন্নেসা ফাউন্ডেশন” থেকে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও শরীয়তপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য জনাব এ কে এম এনামুল হক শামীম,এমপি এসব কথা বলেন।

ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রাখার কথা জানিয়ে উপমন্ত্রী শামীম আরও বলেন, সরকারের পাশাপাশি নড়িয়া-সখিপুরে প্রত্যেক ইউনিয়নে ২০০ করে মোট ৫হাজার ৭শত শাড়ি-লুঙ্গি ভাগ করে দিয়েছি। আমাদের ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আজকেও এখানে ১৩০০ মানুষের মাঝে শুকনো খাবারসহ ত্রাণ সামগ্রী দেয়া হবে।

এ সময় নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান খোকন মোল্লা, সিনিয়র সহ-সভাপতি ফজলুল হক মাল, সহ-সভাপতি বাদশা শেখ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হক সিকদার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাকির বেপারি, ঘড়িসার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রব খান যুবলীগের আহব্বায়ক নাছির, যুগ্ম আহব্বায়ক উজ্জল ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ভাঙন থেকে নড়িয়া রক্ষার বিষয়ে উপমন্ত্রী জানান, কোন বাড়ি-ঘর যাতে না ভাঙ্গে সেজন্য নদী ভাঙন থেকে নড়িয়াকে রক্ষার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা, এলাকার জনগণ, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সবাই গভীর রাত পর্যন্ত কাজ করছে। ঈদের মধ্যেও আমরা কার্যক্রম চালু রাখবো।

এর আগে ১১ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিতব্য সুরেশ্বর–ভেদরগঞ্জ-ডামুড্যা-গোসাইরহাট-চরমনপুরা সড়কের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন এবং নদী তীর সংরক্ষণ কাজের অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ করেন।

এসটি/ এসএইচ