পদ্মার দুর্গম চর কাঁচিকাটায় দ্বিতীয় ধাপে বিদ্যুৎ উদ্বোধন ও ত্রাণ বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: পদ্মার এক বিচ্ছিন্ন চরের নাম কাঁচিকাটা। চরটি শরীয়তপুর জেলাধীন সখিপুর থানায় অবিস্থিত। এই চরে বিদ্যুৎ যাবে এমনটা ভাবা ছিলো কল্পনার মত। এখন তা কল্পনা নয় বাস্তব। কাঁচিকাটা ইউনিয়নের ২নং ওয়াড শিবসেন দ্বিতীয় ধাপে বিদ্যুৎ উদ্বোধন করা হয়।

রোববার ( ২৬ জুলাই) দুপুরে শরীয়তপুর-২ আসনের সাংসদ ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুলক শামীম এমপি টেলিফোনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ উদ্বোধন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ, কাঁচিকাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন দেওয়ান, কাঁচিকাটা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

বিদ্যুৎ উদ্বোধন শেষে বন্যায় প্লাবিত মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়।

চেয়ারম্যান নুরুল আমিন দেওয়ান বলেন, কাঁচিকাটা ইউনিয়নকে সন্ত্রাস মুক্ত করা ও শিক্ষাকে ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া ছিল আমার প্রয়াত বারার স্বপ্ন, বাবার স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য এসি বিলাসবহুল রুমে বসে চাকুরী করা ছেড়ে জনসেবার জন্য এসেছি। কাঁচিকাটা ইউনিয়নের জনগণ বাবা ভালবাসতেন বাবার ভালবাসাকে ভাল লাগত। সেই ভাল লাগাকে ভালবাসা হিসেবে জনগণের কাছে সারাজীবন থাকতে চাই, জনগণের পাশে আছি থাকব ইনশাআল্লাহ।

তিনি বলেন, কাঁচিকাটায় বংশে বংশে হানাহানি আছে, সেই হানাহানির কথা মাননীয় পানিসম্পদ উপমন্ত্রী বক্তৃতায় বলেছেন আপনারা হানাহানি বন্ধ করুন চরাঞ্চলের উন্নয়ন আমি করে দিব।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে করোনার সাথে বন্যা মানুষ দিশেহারা হয়ে গেছে। বন্যায় প্লাবিত হাজারো মানুষ। সকল মানুষের খোজখবর মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় নিজে রাখছেন। তাহার নির্দেশনায় সার্বক্ষণিক বন্যায় প্লাবিত মানুষের পাশে আছি এবং থাকবো।