সখিপুর হবে উপজেলা, গণশুনানিতে পক্ষে মতামত

নিজস্ব প্রতিবেদক: শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানাকে উপজেলায় উন্নীত করার লক্ষে স্থানীয় সরকার বিভাগে যৌক্তিক প্রস্তাব প্রেরণের নিমিত্ত গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। গণশুনানিতে সখিপুর থানাকে উপজেলায় উন্নীত করার পক্ষে বক্তব্যদেন উপস্থিতি সকলেই।

শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১ টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সভাকক্ষে এই গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

গণশুনানিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় উপমন্ত্রী ও শরীয়তপুর-২ নড়িয়া, সখিপুরের এমপি একেএম এনামুল হক শামীম।

জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ ইকবাল হোসেন অপু, শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক এমপি, জেলা পুলিশ সুপার এস. এম. আশরাফুজ্জামান, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছাবেদুর রহমান খোকা শিকদার, ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ, শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অনল কুমার দে, ভেদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির মোল্লাসহ ভেদরগঞ্জ ও সখিপুরের ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার ও গণ্যমান্যব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

বি:দ্র: ভেদরগঞ্জ থানা ও সখিপুর থানা নিয়ে ভেদরগঞ্জ উপজেলা গঠিত। ভেদরগঞ্জ থানা রামভদ্রপুর, মহিষার, ছয়গাঁও ও নারায়নপুর ৪টি ইউনিয়ন নিয়ে এবং সখিপুর থানা ডি.এম. খালী, চরকুমারিয়া, সখিপুর, উত্তর তারাবুনিয়া, কাঁচিকাটা, চরভাগা, আরশীনগর দক্ষিণ তারাবুনিয়া ও চরসেন্সাস ৯টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ ও প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব বিক্রমপুর পরগনার জমিদার সৈয়দ ভেদার উদ্দিন শাহ তাঁর জমিদারীর অংশ বিশেষ হিসেবে ১৯২৪ খ্রিস্টাব্দ এই এলাকা সফরে আসেন। এলাকার প্রজাসাধারণের আইন-শৃংখলা ও জন নিরাপত্তার স্বার্থে ব্রিটিশ সরকারের কাছে একটি থানা স্থাপনের দাবী জানান। ছয়গাঁওসহ ভেদরগঞ্জ এলাকার প্রায় স্থানেই ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন জোরদার ছিল। জমিদারে দাবীর পরিপ্রেক্ষিতে এবং ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন দমনের প্রয়াসে ব্রিটিশ সরকার ভেদর উদ্দিনের নামানুসারে ১৯২৪ খ্রিস্টাব্দের ডিসেম্বর মাসে ভেদরগঞ্জ থানা ঘোষণা করেন। কালের প্রভাবে প্রশাসনিক চাহিদার আলোকে ১৪ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৩ সন ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্থাপিত হয়। ভেদরগঞ্জ থানার চেয়ে সখিপুর থানায় ৫টি ইউনিয়ন বেশি থাকা সত্বেও ভেদরগঞ্জ উপজেলা হওয়াতে সখিপুর থানার ৯টি ইউনিয়নের মানুষ প্রশাসনিক কাজের জন্য এখানে আসতে হয়।

এসএম/এমপি