সেরা উপস্থাপিকা হলেন শরীয়তপুরের মেয়ে শান্তা জাহান

নিজস্ব প্রতিবেদক: এই সময়ে দেশের প্রথম সারির পাঁচ উপস্থাপিকার মধ্যে অন্যতম শান্তা জাহান। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও উপস্থাপনার কাজটি নিয়মিত করছেন আলোচিত এই উপস্থাপিকা। তার সদা হাস্যোজ্বল মুখ ও শৈল্পিক কথোপকথনের সঙ্গে দর্শকরা দিন দিন মুগ্ধ হচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় এবার পুরস্কৃত হলেন তিনি।

দেশে করোনা প্রাদুর্ভাবের মধ্যেও অনলাইনে আয়োজিত ১৯ তম সিজেএফবি (কালচারাল জার্নালিস্ট ফোরাম অব বাংলাদেশ) পারফরম্যান্স অ্যাওয়ার্ড–এ সেরা নারী উপস্থাপিকার পুরস্কার পেয়েছেন শান্তা। এ বিভাগে শান্তার সাথে মনোনয়ন পেয়েছিলেন মারিয়া নূর ও শ্রাবণ্য তৌহিদা।

বিচারকদের রায়ে এ বিভাগে শান্তা এসএটিভির ‘ফোক স্টেশন’ অনুষ্ঠানে উপস্থাপনার জন্য পুরস্কার পেয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে শান্তা বলেন, ‘সম্মাননা দেয়ায় আমি সিজেএফবি কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাই। একটি সম্মাননা অনুপ্রেরণা, বলতে পারেন আরো ভালো কাজের নতুন সূচনা তৈরি করে। আমি সত্যি অনেক আনন্দিত ও সম্মানিত। আমার সঙ্গে যারা মনোয়ন পেয়েছিলেন তাদেরও শুভেচ্ছা জানাই।’

শান্তা জানান, দর্শকের ভালোবাসায় শান্তা হয়েছি। তাদের প্রতি আমার অফুরন্ত ভালোবাসা। আশা করি বরাবরের মতো দর্শকেরা আমাকে সাপোর্ট করে যাবেন।

২০১২ সালে চ্যানেল নাইনে ‘সোনার বাংলা’ নামের একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে টেলিভিশনে তার উপস্থাপনার ক্যারিয়ার শুরু হয়। বাংলাদেশ টেলিভিশনসহ দেশের প্রথম সারির সব টেলিভিশন এবং বিভিন্ন সরকারি ও করপোরেট অনুষ্ঠানের উপস্থাপক হিসেবে শান্তা কাজ করছেন প্রায় আট বছর ধরে।

তিনি মাবরুর রশিদ বান্নাহর ‘নাইন অ্যান্ড হাফ’ শিরোনামের টেলিফিল্মে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনেত্রী হিসেবে পথচলা শুরু করেন। বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করেছেন প্রায় ৩০’টির মতো।

শান্তা জাহানের বাড়ী শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলায়।