শরীয়তপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বেড়ে ৪৭ মোট মৃত্যু ২

নিজস্ব প্রতিবেদক: শরীয়তপুরে নারীসহ নতুন করে আরও আটজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বুধবার (০৬ মে) দুপুর ১টার দিকে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান শরীয়তপুরের সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. আবদুর রশিদ।

তিনি বলেন, বুধবার আরও আটজনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে করোনা পজিটিভ এসেছে। একজন নারী ও সাতজন পুরুষ। এর মধ্যে ১০ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে দুইজন, ৩০ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে তিনজন, ৪৫ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে তিনজন। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ডামুড্যা উপজেলার দারুল আমান ইউনিয়নে সাতজন, শরীয়তপুর সদরের পালং ইউনিয়নে একজন রয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৪৭ জন।

ডা. মো. আবদুর রশিদ বলেন, এ পর্যন্ত জেলায় ৯৮৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ৮২১ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে পেয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। নতুন করে যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তারা কোথায় কোথায় গেছেন তা খোঁজ নেয়া হচ্ছে। তাদের থেকে আক্রান্ত হতে পারেন- এমন সম্ভাব্য ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। তাদের পরিবারসহ আশপাশের বেশ কয়েকটি পরিবারকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখেছে স্থানীয় প্রশাসন। আক্রান্ত পরিবারকে আলাদা থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ডামুড্যা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মর্তুজা আল মুঈদ বলেন, ডামুড্যা উপজেলায় সাতজনের করোনা পজিটিভ এসেছে। তারা সম্প্রতি ঢাকা থেকে শরীয়তপুরের দারুল আমান নিজ এলাকায় ফিরেছেন। আক্রান্ত পরিবারসহ তাদের আশপাশের ৩৭ পরিবার এবং তাদের সংস্পর্শে আসা সবাইকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য বলা হয়েছে। আক্রান্তদের পরিবারকে আলাদা থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ওসব পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে।

গত ৪ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ৯০ বছরের এক বৃদ্ধ ঢাকার কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। গত ২৬ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত ৪৫ বছরের এক ব্যক্তি ডামুড্যা পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডে নিজ বাড়িতে মারা যান। জেলায় করোনায় আক্রান্ত ৪৭ জন।

এসএইচ/ এমটি